College admission result 2024 | XI class admission result 2024 PDF

College admission result 2024 (XI class admission result 2024 PDF / college 1st merit list 2024) will publish on 23 June 2024 8 PM. Whole Bangladesh’s college admission result will available in website : http://xiclassadmission.gov.bd

 

কলেজে একাদশ শ্রেণির ভর্তি রেজাল্ট ২০২৪ (XI class admission result 2024 / ১ম পর্যায়ের মেধা তালিকা / ফলাফল PDF) প্রকাশ হবে ২৩ জুন ২০২৪ রাত ৮টায়। এই ফলাফল বা ১ম মেধা তালিকা (pdf) পাওয়া যাবে অনলাইনে (http://xiclassadmission.gov.bd)।

 

দেশের ৯টি সাধারণ বোর্ড, কারিগরি বোর্ড ও মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনের কলেজগুলোতে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (কলেজ, মাদ্রাসা) একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ফলাফল একই সঙ্গে প্রকাশিত হবে।

 

২৩ জুন ২০২৪ রাত ৮টায় একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি জন্য প্রথম ধাপে আবেদন করা শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে। এবছর একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি জন্য প্রথম ধাপে আবেদন করেছেন ১৩ লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী।
 
ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এবং একাদশে ভর্তি আবেদনের ওয়েবসাইট থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। আগামীকালের প্রকাশিত ফলাফলে শিক্ষার্থীরা জানতে পারবেন, কে কোন কলেজে ভর্তির জন্য প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হয়েছে। 
 
 

Table of Contents

আবেদনের ধাপ ও ভর্তি নিশ্চয়ন ২০২৪

 
ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার জানিয়েছেন, প্রথম ধাপের আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে গত ১৩ জুন। বাছাই প্রক্রিয়া শেষে ১০ দিন পর ফল প্রকাশ করা হচ্ছে। ভর্তি নীতিমালার সময়সূচি মেনে সব কার্যক্রম যথাসময়ে শেষ করা হবে। ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, প্রথম ধাপে ফল প্রকাশের পর নির্বাচিতদের নিশ্চায়ন করতে হবে। তাদের নিশ্চায়ন প্রক্রিয়া শেষ হলে শূন্য আসনে ৩০ জুন থেকে দ্বিতীয় ধাপে আবেদন শুরু হবে, যা চলবে ২ জুলাই পর্যন্ত। ৪ জুলাই রাত ৮টায় দ্বিতীয় ধাপের ফল প্রকাশ করা হবে।
 
এরপর টানা চার দিন চলবে দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচিতদের নিশ্চায়ন প্রক্রিয়া। ৯ ও ১০ জুলাই তৃতীয় ধাপে আবেদন নেওয়া হবে, যার ফল প্রকাশ করা হবে ১২ জুলাই রাত ৮টায়। তিন ধাপে আবেদনের পর ফল প্রকাশ, নিশ্চায়ন ও মাইগ্রেশন শেষে ১৫ জুলাই থেকে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হবে। চলবে ২৫ জুলাই পর্যন্ত। ভর্তি কার্যক্রম শেষে আগামী ৩০ জুলাই সারাদেশে একযোগে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে।

 

College admission 2024

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কলেজ (উচ্চ মাধ্যমিক)
ভর্তির শ্রেণি একাদশ শ্রেণি
শিক্ষাবর্ষ ২০২৪-২০২৫
আবেদন প্রক্রিয়ার সময়কাল মে-জুন ২০২৪
১ম মেধা তালিকা (ভর্তি রেজাল্ট) ২৩ জুন ২০২৪ রাত ৮টা
অনলাইন আবেদন লিংক www.xiclassadmission.gov.bd
কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ২০২৩

 

College admission result 2024 / XI class admission result 2024 PDF How to check

  • প্রথমে কলেজ ভর্তির ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন : www.xiclassadmission.gov.bd
  • এবার রেজাল্ট অপশনে ক্লিক করুন (এই অপশনটি ফলাফল প্রকাশের সময় প্রদর্শিত হবে)
  • আপনার SSC/সমমান রোল নম্বর টাইপ করুন।
  • বোর্ড এবং পাসের সাল নির্বাচন করুন।
  • রেজিস্ট্রেশন নম্বর টাইপ করুন।
  • সবশেষে View Results অপশনে ক্লিক করুন।

সব পরীক্ষার ফলাফল এক অ্যাপেই। BD Exam Results অ্যাপটি ইনস্টল করুন Play store থেকে >> Click here

 

College admission date 2024 (Schedule)

xi class admission 2024 schedule

 

এসএসসি পাসের তুলনায় সিট সংখ্যা কত ২০২৪

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশিত হওয়ার পর কলেজ ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

 

কলেজ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩ ও নীতিমালা

প্রতি বছরের মতো এবারও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য একটি সমন্বিত নীতিমালার খসড়া তৈরি করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি। আগামী ৩১ জুলাই ২০২৩ তারিখে শিক্ষামন্ত্রীর সভাপতিত্বে বৈঠকে এ নীতিমালা চূড়ান্ত হওয়ার কথা রয়েছে। নীতিমালায় বড় কোনো পরিবর্তন না এলেও কলেজে ফি-তে কিছু পরিবর্তন আসতে পারে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এ ব্যাপারে তপন কুমার সরকার বলেন, একাদশে ভর্তির নীতিমালার খসড়া তৈরি করা হয়েছে, যা ৩১ জুলাই ২০২৩ শিক্ষামন্ত্রীর সভাপতিত্বে বৈঠকে চূড়ান্ত হবে। তিনি জানান, খসড়া নীতিমালায় আগামী ১০ আগস্ট থেকে ভর্তির জন্য প্রথম ধাপে আবেদন শুরুর তারিখ প্রস্তাব করেছি। ভর্তি ফি ওই বৈঠকে চূড়ান্ত হবে।

 

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির তারিখ ও ক্লাস শুরু কবে

৩০ জুলাই ২০২৪ তারিখ থেকে শুরু হবে ভর্তির আবেদন। তিন ধাপে চলবে আবেদন প্রক্রিয়া। ২০ সেপ্টেম্বরে মধ্যে প্রক্রিয়া শেষ করে ভর্তির জন্য এক সপ্তাহ সময় দেওয়া হবে। ১ অক্টোবর থেকে ক্লাস শুরু করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির কলেজ শাখা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড একাদশ শ্রেণি এবং বিভিন্ন ডিপ্লোমা কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তির নীতিমালার খসড়া তৈরি করেছে। আগামী ১ অক্টোবর থেকে কলেজে একাদশ ও মাদ্রাসায় আলিম শ্রেণিতে ক্লাস শুরু হবে। অন্যদিকে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটগুলোতে ক্লাস শুরু হবে এক সপ্তাহ পরে ৭ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ থেকে।

 

একাদশ শ্রেণিতে আবেদনের যোগ্যতা ২০২৪

২০২২, ২০২৩ ও ২০২৪ সালে দেশের যেকোনো শিক্ষা বোর্ড এবং উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসএসসি বা সমমান পরীক্ষা পাস করা শিক্ষার্থীরা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অন্যান্য বছরে পাস করা শিক্ষার্থীরাও ম্যানুয়ালি আবেদন করতে পারবে। বিদেশি কোনো বোর্ড বা অনুরূপ কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা সনদের মান নির্ধারণের পর ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

 

বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা যেকোনো (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) বিভাগে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। মানবিক বিভাগ থেকে মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে আবেদন করা যাবে। ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকেও এ দুই বিভাগের একটিতে আবেদন করা যাবে। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে পাস করার শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম কার্যকর হবে।

 

কলেজ চয়েস প্রাপ্ত নাম্বারের ভিত্তিতে

ভালো কলেজগুলোতে একই জিপিএ পেয়ে ভর্তির সুযোগ পেল, আমি কেন পাইনি– প্রতি বছর এমন অভিযোগ আসে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে। তাদের দাবি, আমিও জিপিএ-৫ পেয়েছি, যে ভর্তি সুযোগ পেয়েছে সেও জিপিএ-৫ পেয়েছে। তাহলে আমি কেন ভর্তির সুযোগ পাইনি? এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এক্ষেত্রে এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনালে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে (জিপিএ নয়) ভর্তির মেধাক্রম তৈরি করা হবে। প্রার্থী যেন তার প্রাপ্ত নম্বর মাথায় রেখে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পছন্দের তালিকা দেন। নয়তো জিপিএ-৫ পাওয়ার পরও অনেকেই প্রথম ও দ্বিতীয় তালিকায় জায়গা পাবে না।

 

কলেজ ভর্তি কোটা

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ক্ষেত্রে মোট শূন্য আসনের ৯৩ শতাংশ মেধা কোটা হিসেবে বিবেচিত হবে। এসব শূন্য আসন সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। বাকি ৭ শতাংশের মধ্যে ৫ শতাংশ বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য এবং ২ শতাংশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও অধীন দপ্তর/সংস্থায় কর্মরত কর্মকর্তা/কর্মচারী সন্তানদের জন্য রাখা হয়েছে। এসব আসনে শিক্ষার্থী না থাকলে তা মেধা কোটায় বিবেচিত হবে। কোটার ক্ষেত্রে আবেদনকারী সংখ্যা বেশি হলে মেধার ভিত্তিতে তালিকা করতে হবে।

 

কিছু ক্ষেত্রে ম্যানুয়ালি আবেদনের সুযোগ

পুরো ভর্তি প্রক্রিয়াটি অনলাইনে হলেও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট বোর্ডে ম্যানুয়ালি ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। প্রবাসীদের সন্তান বা বিকেএসপি থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বা খেলাধুলা এবং সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে বিভাগীয় বা জাতীয় পর্যায়ে অসামান্য অবদানের জন্য পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য বোর্ডে ম্যানুয়ালি আবেদন করতে পারবে। এক্ষেত্রে বোর্ড উপযুক্ত প্রমাণপত্র যাচাই-বাছাই করে শিক্ষার্থী ভর্তির ব্যবস্থা করে দেবে।

 

কলেজ ভর্তি ফি কত টাকা

২০২৩ সালে একাদশে ভর্তির খসড়া নীতিমালায় ভর্তি ফি গত বছরের মতোই নির্ধারণ করা হয়েছে। একাদশের ভর্তির ক্ষেত্রে এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সেশন চার্জ ও ভর্তি বাবদ এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ঢাকা মেট্রোপলিটনে বাংলা ভার্সনে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা, ইংরেজিতে ৫ হাজার টাকা; ঢাকার বাইরের মেট্রোপলিটন এলাকায় বাংলা ভার্সনে ৩ হাজার, ইংরেজিতে ৩ হাজার টাকা; জেলা শহরে বাংলায় ২ হাজার, ইংরেজিতে ২ হাজার টাকা এবং উপজেলা/মফস্বল পর্যায়ে বাংলায় ১ হাজার ৫০০ ও ইংরেজিতে ১ হাজার ৫০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উন্নয়ন ফি গ্রহণ করা যাবে না।

 

নন-এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ঢাকা মেট্রোপলিটনে বাংলা ভার্সনে ৭ হাজার ৫০০, ইংরেজিতে ৮ হাজার ৫০০; ঢাকার বাইরে মেট্রোপলিটন এলাকায় বাংলায় ৫ হাজার, ইংরেজিতে ৬ হাজার; জেলা শহরে ৩ হাজার থেকে ৬ হাজার টাকা এবং উপজেলা/মফস্বলে ২ হাজার ৫০০ থেকে ৩ হাজার টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। ফি আদায়ের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীকে রসিদ দিতে হবে। দরিদ্র, মেধাবী ও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে উল্লিখিত সব ফি যতদূর সম্ভব মওকুফ করতে বলা হয়েছে। সব ফি’র বিবরণ স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বোর্ডে ঝুলিয়ে দিতে হবে। কোনোভাবে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা যাবে না।

 

নির্ধারিত ফি’র বাইরে কোনো প্রতিষ্ঠান অর্থ নিলে বোর্ডে অভিযোগ করার পরামর্শ দেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার। তিনি জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর প্রাথমিক সত্যতা পেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অতীতে অনেক প্রতিষ্ঠানের ভর্তির সার্ভার বন্ধ করে রাখা হয়। এবারও তাই হবে।

 

সারা দেশের কলেজে খালি থাকবে 8 লাখ আসন

এবার এসএসসি পাস করা সব শিক্ষার্থী একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির পরও আট লাখের বেশি আসন খালি থাকবে। তবে বরাবরের মতোই মানসম্পন্ন কলেজগুলোয় ভর্তির জন্য প্রতিযোগিতা থাকবে। আবার অনেক কলেজে আসন খালি রয়ে যাবে।

শিক্ষা বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, সারা দেশে একাদশ শ্রেণিতে আসন রয়েছে ২৫ লাখ। অন্যদিকে, এবার এসএসসি পাস করেছে ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৫৩ জন শিক্ষার্থী। অর্থাৎ, এসএসসি পাস সবাই কলেজে ভর্তি হলেও আট লাখের বেশি আসন খালি থেকে যাবে।

 

পছন্দের তালিকায় ২৫০ কলেজ

সারা দেশে ভর্তিযোগ্য প্রায় সাড়ে ১১ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একাদশে ভর্তির আবেদন নেওয়া হলেও মূলত লড়াই হবে আড়াইশ কলেজ, মাদ্রাসা ও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে।

বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ড থেকে জানা যায়, দেশে সাড়ে ১১ হাজার প্রতিষ্ঠানে একাদশ শ্রেণিতে পাঠদান হলেও মূলত আড়াইশ কলেজে ভর্তির আগ্রহ থাকে সবার। এর মধ্যে প্রায় দুইশ কলেজ ও মাদ্রাসা এবং ৪৭টি সরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, একটি গ্রাফিক্স আর্ট ইনস্টিটিউট ও একটি গ্লাস অ্যান্ড সিরামিকস ইনস্টিটিউট রয়েছে।

এছাড়া ৫১৫টি বেসরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থাকলেও হাতেগোনা ডজনখানেক প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থী আকৃষ্ট করার ক্ষমতা রাখে। ডিপ্লোমা ইন কমার্সের সাত প্রতিষ্ঠান ও বিএমটি এবং ভোকেশনাল প্রতিষ্ঠানেও কিছু শিক্ষার্থী ভর্তি হয়।

 

নিজস্ব পদ্ধতি ভর্তিতে নটর ডেম, হলিক্রস, সেন্ট যোসেফ কলেজ

২০১৫ সাল থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি করানো হয়। তবে চার্চ পরিচালিত তিনটি কলেজ– হলিক্রস, সেন্ট যোসেফ এবং নটর ডেম কলেজ নিজের মতো করে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে তাদের শিক্ষার্থী নির্বাচিত করে। প্রতি বছরের মতো এবারও এ তিন কলেজ নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি করাবে বলে জানা গেছে।

জানতে চাইলে নটর ডেম কলেজের অধ্যক্ষ হেমন্ত পিউস রোজারিও বলেন, হাইকোর্ট থেকে অনুমতি নিয়ে প্রতি বছর আমরা নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে ছাত্র নির্বাচিত করি। এবারও একই পদ্ধতিতে ভর্তি করানো হবে।

 

সব কলেজের আসন তালিকা ও ভর্তির যোগ্যতা

শিক্ষা বোর্ড সব কলেজের তালিকা, ভর্তির পয়েন্ট, সিট সংখ্যা
ঢাকা বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_DHAKA.pdf
কুমিল্লা বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_CUMILLA.pdf
রাজশাহী বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_RAJSHAHI.pdf
যশোর বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_JASHORE.pdf
চট্টগ্রাম বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_CHATTOGRAM.pdf
বরিশাল বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_BARISHAL.pdf
সিলেট বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_SYLHET.pdf
দিনাজপুর বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_DINAJPUR.pdf
ময়মনসিংহ বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_MYMENSINGH.pdf
মাদরাসা বোর্ড http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_MADRASAH.pdf
সব কলেজের আসন তালিকা ও ভর্তির যোগ্যতা

 

 

ঢাকার কলেজে ভর্তি ২০২৪

 

  • ঢাকা বোর্ডের কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে এটা দেখতে হলে আপনাকে ঢাকা বিভাগের জন্য প্রকাশিত কলেজ ভর্তি যোগ্যতা pdf ফাইলটি ডাউনলোড করুন।
  • এখানে ঢাকার কয়েকটি কলেজের তালিকা, ভর্তির ন্যূনতম পয়েন্ট (জিপিএ) ও আসন সংখ্যার তথ্য দেয়া হয়েছে। বোর্ড ভিত্তিক দেশের সব কলেজের তালিকা, ভর্তির ন্যূনতম পয়েন্ট (জিপিএ) ও আসন সংখ্যা জানতে নিচের বোর্ড ভিত্তিক তালিকার Download লিংকে ক্লিক করুন।

 

কলেজের নাম ও ঠিাকান EIIN ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ ও আসন সংখ্যা
ঢাকা কলেজ
(নিউ মার্কেট)
107977 বিজ্ঞান বিভাগ : ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ ৫.০০ (৯০০টি);
ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৪.৭৫ (১৫০টি)
মানবিক : জিপিএ ৪.৫০ (১৫০টি)
নটর ডেম কলেজ (ভর্তি পরীক্ষা হবে)
[ আরামবাগ, মতিঝিল ]
  বিজ্ঞান : জিপিএ ৫.০০; বাংলা ভার্সন : ১৮০০টি,
ইংরেজি ভার্সন ৩০০টি;
ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৪.০০; ৭৬০টি;
মানবিক : জিপিএ ৩.৫০; ৪১০টি
ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজ
(মোহাম্মদপুর)
108258 বিজ্ঞান বিভাগ : জিপিএ ৫.০০; প্রভাতি ৩২০টি, দিবা ৩২০টি,
ইংরেজি ভার্সনে প্রভাতি ৭০ ও দিবা ৭০টি
*একই প্রতিষ্ঠান থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের জিপিএ-৪.৭৫
ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৪.৫০; প্রভাতি ৫৫টি, দিবা ৫৫টি
মানবিক : জিপিএ ৪.২৫; প্রভাতি ৫৫টি, দিবা ৫৫টি
আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ
(ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট)
107855 বিজ্ঞান বিভাগ (বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন) : জিপিএ-৫
ব্যবসায় শিক্ষা (বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন) : জিপিএ-৪.৭৫
মানবিক (বাংলা ভার্সন) : জিপিএ-৪.৭৫
বিএএফ শাহীন কলেজ, কুর্মিটোলা
(ঢাকা সেনানিবাস)
107859 বিজ্ঞান বিভাগ (বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন) : জিপিএ-৫
ব্যবসায় শিক্ষা (বাংলা ভার্সন) : জিপিএ-৪.২৫
মানবিক (বাংলা ভার্সন) : জিপিএ-৩.৫০
বিসিআইসি কলেজ
(চিড়িয়াখানা সড়ক, মিরপুর)
108222 বিজ্ঞান বিভাগ : জিপিএ ৪.৭৫; ছাত্র ৩০০টি, ছাত্রী ৩০০টি;
ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৩.০০; ছাত্র ১৮০টি, ছাত্রী ১৮০টি;
মানবিক : জিপিএ ২.৫০; ছাত্র ৬০টি, ছাত্রী ৬০টি;
ঢাকা কমার্স কলেজ 108207 ব্যবসায় শিক্ষা : বাংলা ভার্সন – ২৯০০টি, ইংরেজি ১০০টি
মানবিক : বাংলা ভার্সন – ১৬০০টি, ইংরেজি ১০০টি
দনিয়া কলেজ
[ শনির আখড়া, যাত্রাবাড়ী ]
107909 বিজ্ঞান বিভাগ : জিপিএ ৪.২৫; ৭০০টি;
ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৩.৭৫; ৭৫০টি;
মানবিক : জিপিএ ৩.০০; ৭০০টি
সেন্ট জোসেফ কলেজ
(আসাদ এভিনিউ, আসাদ গেইট)
108259 বিজ্ঞান বিভাগ : জিপিএ ৫.০০; বাংলা ভার্সন : ৪২০টি,
ইংরেজি ভার্সন ৮০টি
ব্যবসায় শিক্ষা : জিপিএ ৩.৫০; ১৭০টি;
মানবিক : জিপিএ ২.৫০; ৯০টি।

 

 

 

ঢাকা বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_DHAKA.pdf

 

 

 

ঢাকার কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২

ঢাকা বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_DHAKA.pdf

এছাড়া শীর্ষ পর্যায়ের কয়েকটি কলেজের আসন সংখ্যা ও পয়েন্ট তালিকা নিচে দেওয়া হলো-

নটর ডেম কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৩ হাজার ২৭০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ৭০৪টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৭৫
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ১৪টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ২ হাজার ২০০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৭২
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ১৬৫টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

সরকারি বিজ্ঞান কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ২৪৫টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ২ হাজার ৩৭৬টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

হলিক্রস কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ২ হাজার ৩৩০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

বিএএফ শাহীন কলেজ কুর্মিটোলা

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ২২০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.২০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

বাংলাদেশ নৌবাহিনী (বিএন) কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৯৫০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

ঢাকা কলেজ

মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ২০০টি
মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৫০
বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৭৫
বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

ঢাকা সিটি কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৩ হাজার ৭৬২টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সী আব্দুর রউফ পাবলিক কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ৯৮০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০

মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৬১০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০

বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ২ হাজার ২০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

শহীদ বীর উত্তম লে. আনোয়ার গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ১২০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৮৩
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়

  • মোট আসন সংখ্যা ৭৬০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ২.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

ড. মাহবুবুর রহমান মোল্লা কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ২ হাজার ৪৮৫টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৭২

ন্যাশনাল আইডিয়াল কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ১ হাজার ৫৫টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ২.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

সরকারি মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৯৮৫টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৭৫
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৭৫

মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৪ হাজার ৭০০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০

ঢাকা কমার্স কলেজ

  • মোট আসন সংখ্যা ৪ হাজার ৭০০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.০০

শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে

  • মোট আসন সংখ্যা ৮৮০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.২০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৪.৮৯

উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়

  • মোট আসন সংখ্যা ৫০০টি
  • মানবিক বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.০০
  • বিজনেস স্টাডিজ বিভাগের জন্য জিপিএ ৩.৫০
  • বিজ্ঞান বিভাগের জন্য জিপিএ ৫.০০

 

 

সিলেট কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৪

সিলেট বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_SYLHET.pdf

 

 

কুমিল্লা কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৪

কুমিল্লা বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_CUMILLA.pdf

রাজশাহী কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৩

রাজশাহী বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_RAJSHAHI.pdf

 

 

দিনাজপুর কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৪

দিনাজপুর বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_DINAJPUR.pdf

 

 

বরিশাল কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৩

বরিশাল বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_BARISHAL.pdf

 

 

ময়মনসিংহ কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৪

ময়মনসিংহ বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_MYMENSINGH.pdf

 

 

চট্টগ্রাম কোন কলেজে ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৩

চট্টগ্রাম বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_CHATTOGRAM.pdf

 

 

যশোর বোর্ডের কোন কলেজে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৪

যশোর বিভাগের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজের তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_JASHORE.pdf

 

 

মাদ্রাসা বোর্ডের কোন মাদ্রাসায় ভর্তি হতে কত পয়েন্ট লাগবে ২০২৩

মাদরাসা বোর্ডের অধীনে থাকা সব আলিম মাদরাসার তালিকা, ঠিকানা, ভর্তি যোগ্যতা (ন্যূনতম পয়েন্ট / জিপিএ, আসন সংখ্যা এক ফাইলে পেতে PDF ফাইলটি Download করুন এই লিংক থেকে : http://xiclassadmission.gov.bd/svg/SVG_MADRASAH.pdf

 

 

 

কলেজ ভর্তি আবেদন ২০২৪

কলেজে ভর্তির আবেদন অনলাইনে শুরু হবে শিগগিরই। আবেদন করতে হবে www.xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

কলেজ ভর্তি রেজাল্ট ২০২৩ | XI class admission result 2023 PDF http://xiclassadmission.gov.bd
কলেজ ভর্তি রেজাল্ট ২০২৩ | XI class admission result 2023 PDF

 

 

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির যোগ্যতা

১. ২০২০, ২০২১, ২০২২ সালে দেশের যে কোন শিক্ষা বোর্ড এবং বাংলাদেশের উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০২০, ২০২১, ২০২২ সালে এস এস সি বা সমমানের পরিক্ষায় উত্তির্ণ শিক্ষার্থীগণ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে নীতিমালার অন্যান্য বিধানাবলি সাপেক্ষে কোন কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হবে। এছাড়া উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলতি বছরে উত্তির্ণ শিক্ষার্থীসহ অন্যান্য বছরের শিক্ষার্থীরাও ভর্তির জন্য বোর্ডে ম্যানুয়ালি আবেদন করতে পারবে।

২. বিদেশি কোন বোর্ড বা অনুরুপ কোন প্রতিষ্ঠান হতে সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীগণ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা কর্তৃক তার সনদের মান নির্ধারণের পর দফা (২.১) এর অধীনে ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হবে।

 

একাদশে ভর্তির গ্রুপ নির্বাচন যেভাবে

  • ১. বিজ্ঞান গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যে কোন ১টি;
  • ২. মানবিক গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যে কোন ১টি এবং
  • ৩. ব্যবসায় গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক গ্রুপের যে কোন ১টি;
  • ৪. যেকোন বিভাগ (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও সংগীত গ্রুপের যেকোন ১টি;
  • ৫. মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড থেকে বিজ্ঞান বিভাগে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোন ১টি এবং সাধারণ বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যেকোন ১টি।

 

 

ভর্তির জন্য একজন প্রার্থী নিম্নরূপ-এ গ্রুপ নির্বাচন করতে পারবে, যথা:

i) সাধারণ শিক্ষা বোর্ড হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তির ক্ষেত্রে:

(ক) বিজ্ঞান গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রæপের যে কোনটি। তবে বিজ্ঞান গ্রæপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী অন্য
গ্রুপে একবার ভর্তি হওয়ার পর পরবর্তীতে আর বিজ্ঞান গ্রুপে প্রত্যাবর্তন করতে পারবে না;
(খ) মানবিক গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যে কোনটি এবং
(গ) ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক গ্রুপের যে কোনটি।

 

 

ii) মাদ্রাসা বোর্ড হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তির ক্ষেত্রে :

(ক) বিজ্ঞান গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞান,
সাধারণ গ্রুপ ও মুজাব্বিদ গ্রুপের যে কোনটি;
(খ) সাধারণ গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা এবং মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের সাধারণ গ্রæপ ও
মুজাব্বিদ গ্রুপের যেকোনটি;
(গ) মুজাব্বিদ গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা এবং মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের সাধারণ গ্রæপ ও
মুজাব্বিদ গ্রুপের যেকোনটি;


(ঘ) দাখিল (ভোক) গ্রুপ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বোর্ডের বিজ্ঞান, সাধারণ গ্রুপ ও মুজাব্বিদ গ্রুপের যেকোনটি ।

 

 

iii) কারিগরি শিক্ষা বোর্ড হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তির ক্ষেত্রে :

(ক) এসএসসি (ভোক)/দাখিল (ভোক) গ্রুপ হতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা গ্রুপের যে কোনটি ।

iv) যে কোন বিভাগ (বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা) থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও সংগীত গ্রুপ এর যে কোনটি ।

 

 

আরো দেখুন :
একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন ফরম পূরণ, কলেজ চয়েস ও ফি জমার নিয়ম
সরকারি কলেজের তালিকা

 

4.5/5 - (2 votes)

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page

Scroll to Top